Deshebideshe tv

বিয়ে দ্রুত শেষ করতে পুরোহিতকে ঘুষ সাধেন অজয়!

বিয়ে দ্রুত শেষ করতে পুরোহিতকে ঘুষ সাধেন অজয়!

মুম্বাই, ১০ জানুয়ারি- বলিউডের অন্যতম রিয়েল লাইফ জুটি কাজল ও অজয় দেবগণ। পথচলার ২০ বছর পার করেছেন তারা। বলা যায় ২০ বছরেও এতটুকু ফিকে হয়নি তাদের সম্পর্কের রসায়ন। নিজেদের ইমেজেও কোনও রকম আঁচ লাগতে দেননি তারা। বহু বছর পর ফের জুটি বেঁধে ফিরছেন বড় পর্দাতেও। রিয়েল লাইফের জুটির ব্যকরণ এবার রিল লাইফে দেখার অপেক্ষায় মুখিয়ে রয়েছেন দর্শকরা।

আগামী শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) মুক্তি পাচ্ছে অজয়-কাজলের ‘তানাজি: দ্য আনসাং ওয়ারিয়র’। ছবির নাম ভূমিকায় রয়েছেন অজয়। আর তানাজির স্ত্রীর চরিত্রে দেখা যাবে কাজলকে। তবে ছবি রিলিজের আগে অজয়ের সঙ্গে সম্পর্ক নিয়ে বোমা ফাটালেন কাজল। দীর্ঘ একটি ফেসবুক পোস্টে কাজল লিখেছেন, ২৫ বছর আগে তাদের দেখা হয়েছিল ‘হলচাল’-এর সেটে। তারপর কীভাবে অজয়ের সঙ্গে তার বন্ধুত্ব হয়। কীভাবে সম্পর্ক গড়ে ওঠে সবটাই খোলসা করেছেন তিনি। কাজল জানান, অজয়ের বাড়ি ছিল জুহুতে, আর কাজল থাকলেন দক্ষিণ বম্বেতে। ফলে দুজনের সম্পর্ক বেশিরভাগটাই গড়ে উঠেছিল গাড়িতে। কখনও কেউ কাউকে প্রপোজ করেননি। নিজেরা বুঝেই গিয়েছিলেন যে এবার সম্পর্কটায় পরিণতি দেওয়ার সময় এসেছে। বিয়ের সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন নয়ের দশকের হিট নায়ক-নায়িকা।

যদিও কাজলের বাবার সম্মতি ছিলোনা এতে। মেয়ের সঙ্গে ৪ দিন কথাও বলেননি তিনি। কিন্তু মেয়েও নাছোড়বান্দা। অবশেষে বিয়ে হল। সংবাদমাধ্যমের চোখে ধূলো দিয়েছিলেন অন্য জায়গার ঠিকানা দিয়ে। প্রথমে পাঞ্জাবী, পরে মারাঠি মতে বিয়ে হয় অজয়-কাজলের। এত লম্বা বিয়ে চলছে দেখে অজয় পুরোহিতকে বারবার বলেছিলেন তাড়াতাড়ি সাত পাক শেষ করতে। এমনকি এর জন্য পণ্ডিতকে ঘুষও দিতে চান অজয়! কাজলের বরাবরের ইচ্ছে ছিল লম্বা হনিমুনের। প্রথমে সিডনি তারপর হাওয়াই, লস অ্যাঞ্জেলস। ততদিনে ৫ সপ্তাহ কেটে গেছে। ফেরার নামই করছেন না কাজল। শেষে উপায় না দেখে নববধূকে অজয় বলেন, ‘বেবি, বুক মি অন দ্য নেক্সট ফ্লাইট হোম।’ অজয়ের শরীর খারাপ হওয়ায় শেষ পর্যন্ত মিশরের পরিকল্পনা বাতিল করেই ফিরে আসেন তারা।

আর/০৮:১৪/১০ জানুয়ারি